এবার স্বামী নিককে ডিভোর্সের হু’মকি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার!

মাস খানেক পর নিক জোনাস এবং প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার প্রথম বিবাহবার্ষিকী।

তার আগেই স্বামী নিককে ডিভোর্সের হুমকি গুঞ্জন উঠলো? অবশ্য এই প্রথম নিক প্রিয়াঙ্কার বিচ্ছেদের খবর শোনা যাচ্ছে, এমনটা নয়!

বিয়ের মাস চারেকের মধ্যেই শোনা গিয়েছিলো এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদের কথা। তখন যদিও নিন্দুকদের গুঞ্জনে জল ঢেলেছিলেন এই দম্পতি। তবে এবার বোধহয় ব্যাপার খানিক সিরিয়াস! কী এমন ঘটলো যে হঠাৎ দেশি গার্ল তড়িঘড়ি বিচ্ছেদের হুমকি দিলেন নিককে।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নিক-প্রিয়াঙ্কার সম্পর্কটা ঠিক ইঁদুর-বেড়ালের মতো। এটা তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের অনেকের কথাতেই প্রকাশ পেয়েছে বহুবার।

এই ঝগড়া তো এই প্রেমে গদগদ! কয়েকমাস বাদে যাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী ঘটা করে পালন করার কথা ছিল তারাই কি না একে অপরের অভ্যেসে বিরক্ত!

বিবাহিত জীবনে অনেক কিছুই ঠিকঠাক নেই নিক-প্রিয়াঙ্কার মধ্যে। তারা ঝগড়া করছেন প্রায় সবকিছু নিয়েই।

নিজেদের ওয়ার্ক শিডিউল, পার্টি অ্যাটেন করা, একসঙ্গে সময় কাটানোর মতো সময় বার না করতে পারা- এমন সবকিছু নিয়েই তুমুল অশান্তির কালোঝড় বইছে এখন নিক-প্রিয়াঙ্কার ৪১২৯ বর্গফুটের ৪৫ কোটিরও বেশি দামের বেভারলি হিলসের বাংলোয়।

প্রিয়াঙ্কা দুই মাস ভারতে থাকেন তো নিক আমেরিকায়। অনেক সময়েই একে অপরকে ছাড়া কাটাতে হয়। বিশেষ করে পার্টি করাই নিক-প্রিয়াঙ্কার ঝামেলার মূল কারণ। প্রিয়াঙ্কা কার সঙ্গে পার্টি করবেন, কতক্ষণ পার্টি করবেন এই নিয়েই ঝগড়া হয় বেশিরভাগ সময়।

অন্যদিকে নিকও নাকি খুব বদমেজাজী। সব মিলিয়ে নাজেহাল দেশি গার্ল। তাই নিককে হুমকি দিয়ে রেখেছেন প্রিয়াঙ্কা যে নিক যদি তার এসব অভ্যেস বাদ দিতে না পারেন,

তাহলে তিনি ছেড়ে চলে যাবেন। অনেকেই অবশ্য বলেছেন, প্রিয়াঙ্কা খুব তাড়াতাড়ি বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার আরো বেশি করে নিককে জানা ও বোঝা উচিত ছিল বিয়ের আগে।