শোভন-রাব্বানীর পথেই হাটছেন ছাত্রদলের নতুন সভাপতি-সম্পাদক!

দীর্ঘ ২৭ বছর পর নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব পেয়েছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। নির্বাচিত হওয়ার তিনদিনের মাথায় বিতর্কে জড়িয়ে পরেছেন ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল।

নতুন কমিটি গঠিত হওয়ার পর শনিবারই (২১ সেপ্টেম্বর) ছিল ছাত্রদলের প্রথম কর্মসূচি। আর প্রথম কর্মসূচির দিনেই ছাত্রদলের নবনির্বাচিত দুই কান্ডারী সময় মতো উপস্থিত হতে পারে নি।

নবনির্বাচিত কমিটি গঠিত হওয়ার পর শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর কথা ছিল। এতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা সঠিক সময়ে উপস্থিত হলেও ছাত্রদলের নবনির্বাচিত দুই নেতা উপস্থিত হতে পারে নি।

বিএনপি মহাসচিবসহ সিনিয়র নেতারা ছাত্রদলের দুই নেতার জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। জিয়াউর রহমানের মাজারে ৪৫ মিনিট পর বেলা পৌনে ১১টায় উপস্থিত হয় ছাত্রদলের সভাপতি ও সম্পাদক।

কর্মসূচিতে আসতে দেরি হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, আমি বিএনপি মহাসচিব এর জন্য গেটে অপেক্ষা করছিলাম। যেই গেটে তার জন্য অপেক্ষা করছিলাম সেই গেট দিয়ে না গিয়ে অন্য গেট দিয়ে জিয়াউর রহমানের মাজারে প্রবেশ করেছেন তিনি। তাই এ সমস্যা হয়েছে।

এসময় ছাত্রদলের কয়েকজন নেতাকে বলতে শোনা যায় ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পথেই হাটছেন তারা। ছাত্রলীগ নেতারাও বিভিন্ন এমপি মন্ত্রীদেট দাওয়াত দিয়ে সময় মতো কর্মসূচিতে উপস্থিত হতেন না। আজ প্রথম দিনেই এই অবস্থা তাহলে বাকি সময় তারা কি ভাবে কাজ করবে।

কিছুদিন আগে বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে যেসকল অভিযোগর রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম একটি কারণ ছিল বিভিন্ন প্রোগ্রামে দেরিতে উপস্থিত হওয়া।