মোদিকে সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা দিচ্ছে আরব-আমিরাত

ঘোষণা আগেই হয়েছিল। সেই অনুযায়ী চলতি মাসেই সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান ‘অর্ডার অব জায়েদ’ পাচ্ছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে এক বিবৃতিতে একথা জানানো হয়েছে।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী ২৩ ও ২৪ আগস্ট আমিরাত সফরে যাবেন মোদি। তখনই তাঁকে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হবে বলে খবর দিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম।

খবরে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে আরব আমিরাতের সঙ্গে বন্ধুত্ব অটুট রাখার জন্যই দেওয়া হচ্ছে এই বিশেষ সম্মান। মোদিকে এই সম্মান প্রদান প্রসঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ শেখ মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান জানিয়েছিলেন, দুই দেশের সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি।

তিনি বলেন, ভারত ও আরব আমিরাতের মধ্যে যে ঐতিহাসিক সম্পর্ক ছিল, তাকে নতুন মাত্রা দিয়েছেন মোদি। আগামী দিনে দুই দেশের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ যাতে উজ্জ্বল হয়, সেই ক্ষেত্রেও মোদি কাজ করেছেন বলে জানিয়েছেন যুবরাজ।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৮ সালে এই সম্মাননা দেওয়া হয় চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে।

উল্লেখ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাতের অন্যতম স্রষ্টা শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের নামে দেওয়া হয় এই পুরস্কার। তার জন্মশতবর্ষে পুরষ্কারটি দেওয়া হচ্ছে নরেন্দ্র মোদিকে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, তিনদিনের এই সফরে আবু ধাবির যুবরাজ শেখ মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে বৈঠক করবেন মোদি। দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে হবে আলোচনা।

উল্লেখ্য, ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম ট্রেড পার্টনার হলো সংযুক্ত আরব আমিরাত। ভারতকে যেসব দেশ তেল দেয়, তাদের মধ্যে চতুর্থ বৃহত্তম এই দেশটি। মোদির সফরে আগামী দিনে দুই দেশের সম্পর্ক আরও পাকাপোক্ত হবে বলে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সেই বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে।

এদিকে, আমিরাত সফরের পর ভারতরে প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বাহরাইন সফরে যাবেন মোদি। সেখানে বাহরাইনের প্রধানমন্ত্রী শেখ খলিফা বিন সালমন আল খলিফার সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ছাড়াও আন্তর্জাতিক ইস্যুতেও কথা হবে তাদের।